সনেট সংখ্যা সম্পাদকীয়

অনেকগুলো মাস হলো আমরা একটা অন্তরীণ সময়ে বাস করছি । এক ঋতু থেকে চলে এসেছি অন্য ঋতুতে, অথচ কোথাও যেন উদ্দীপনা নাই, নাই প্রাণের আনন্দ— চারদিকে কেবল মৃত্যু আর মারীর দীর্ঘ চিৎকার। এমন অশুভকালেও আমরা লক্ষ্য করছিলাম, আমাদের কবিরা নানান ফর্মের কবিতা রচনা করছেন— বিশেষত সনেট । সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গত কয়েক মাসে অনেকের লেখা সনেটই পড়া হলো। কারো-কারো বই-ও বেরোচ্ছে। কেন সনেট? এই সময়ে অন্য আর কোনো ফর্মের এত দৌরাত্ম্য নাই কেন? এই প্রশ্ন বারবার আমরা করতে চেয়েছি নিজেদেরকেই, যদিও কাঙ্ক্ষিত উত্তর পাওয়া যায় নি। এমন তো হতে পারে, সনেট হলো কবিতার আভিজাত্যপূর্ণ ফর্ম, প্রায় সব কবিই নাকি সফল সনেট লিখতে চান— তো, অবরুদ্ধ সময়ের মনস্তত্ত্ব হয়তোবা ধরা যায় অবরুদ্ধ ফর্মেই। আরেকটা কারণ কী হতে পারে এমন? —বিগত দশকে ফর্মে কবিতাচর্চা তেমন হয় নি বলেই ছন্দে ফিরে আসছে সাম্প্রতিক কবিরা? এবং বেছে নিচ্ছেন সনেটের মতন অভিজাত ফর্ম?

ইউরোপ থেকে এসে সনেট বাংলায় থিতু হলো সে বহুদিন। বহু কবির হাতে যুগের রঙ লেগে সনেট বলে গেছে আমাদেরই স্বর-নৈঃস্বর। মাত্রা ও চরণের নিরীক্ষাক্ষেত্রে নিজেকে রোপণ করে হয়ে উঠেছে বাঙালিরই নিজস্ব ফসল। সেই শস্য-প্রতিভা ফিরে ফিরে আসে। বহুপথগামী বাংলা কবিতাকে ব্যঞ্জনা দেয় নবতর বাক্ ও ভঙ্গিমায়- বিষয় ও বৈভবে।

শিরিষের ডালপালা সেই নতুন অভিনিবেশকে ধরতে চেয়েছে। বিশেষ এই সংখ্যায় ১৩ জন কবির পাঁচটি করে মোট ৬৫টি কবিতা স্থান পেয়েছে। এর মধ্যে ৬০টি-ই একেবারে সাম্প্রতিক সময়ে লেখা। তাই অনেকেরই হাতে সমসময়ে একটা ফর্ম কী বৈচিত্র্য নিয়ে হাজির হতে পারে তারই একটা নজির হয়তো আমাদের প্রকাশিত কবিতাগুলোয় পাওয়া যাবে।

যদিও সবগুলো সনেটই অক্ষরবৃত্তের চালে লেখা কিন্তু বিষয়বৈচিত্র্যে, ভাষার মুন্সিয়ানায় আর কবি ব্যক্তিত্বের দ্যুতিতে সেসব হয়তো মনে থেকে যাবে পাঠকের। পয়ারেও যে অনেকরকম ফরম্যাটে সনেট লেখা যায়, শিরিষের ডালপালার এই সংখ্যাটি তারও হয়ত সাক্ষী হয়ে থাকবে। এবং আমরা আশা করবো মাত্রাবৃত্তে এবং স্বরবৃত্তেও মন্থর চালে দ্রুতই নতুন সনেট লেখা হবে। হয়তো সনেটকেই নতুন কোনো সম্ভাবনার পথে চালিত করতে আমাদের এই সংখ্যাটি ভূমিকা রাখবে। আর কবি আল ইমরান সিদ্দিকীর লেখা সনেট-বিষয়ক গদ্যটিও এই সংখ্যাটিকে নিশ্চয়ই সমৃদ্ধ করেছে। 

হ্যাপি রিডিং…


প্রসঙ্গ : সনেট | আল ইমরান সিদ্দিকী

সুব্রত অগাস্টিন গোমেজ-এর কবিতা

আবু সাঈদ ওবায়দুল্লাহ-এর কবিতা

কাজী নাসির মামুনের কবিতা

সোহেল হাসান গালিব-এর কবিতা

জ্যোৎস্নাসম্প্রদায় | জাকির জাফরান

মৃত নদীর গান অথবা দ্বিধার ঈশ্বর | সৈয়দ সাখাওয়াৎ

নির্ঝর নৈঃশব্দ্য-এর কবিতা

আশরাফ জুয়েল-এর কবিতা

হিজল জোবায়ের-এর কবিতা

ধুলিম্লান কবিতাগুচ্ছ | রিমঝিম আহমেদ

মুসলমানের ছেলে | হাসান রোবায়েত

মোস্তফা হামেদীর কবিতা

মান্দার ফুলের সখা | রুহুল মাহফুজ জয়

শেয়ার করুন

লেখা সম্পর্কে মন্তব্য

টি মন্তব্য

%d bloggers like this: