নীরিক্ত গরাদের দিকে ।। হাসান রোবায়েত

আকাশের পায়রা অবধি উড়ি ঐ পাখি কাবেরী-জলের পাশে ভেঙে যায় তীর— অস্থির এক নোনা প্রাণ দেখি হেলে যায় সুরে চাকা ঘোরে পরিত্যক্ত বনের ভেতর মাটির অনাস্থা পড়ে থাকে উঠোনের পাশে— তবু বাঁশি নীরিক্ত গরাদের দিকে সাজায় অজ্ঞাত কাঠ! কেন যে সোনার বিভ্রম, বাতাসের সলিচুড ঘিরে ক্রমাগত আছড়ে পড়েছে ক্ষার! সুর, তুমি শূন্যের সারাৎসার আজানু গন্ধক …

দশটি কবিতা ।। মীর নিশাত তাসনিম তানিয়া

সুলেখা বানু আজ সকালে পোস্টমাস্টার একটা চিঠি পেয়েছে। সেটা সে পৌঁছে দেবে সুলেখার বাড়িতে। সুলেখা — হয়ত তখন ধান মাড়াবে। অথবা অন্দরে বসে বটি নিয়ে মেতে থাকবে রান্নার ঝামেলায়। অথচ- চিঠিটা হাতে পেতেই সুলেখার জীবন বদলে যাবে। সুলেখা বানু — তেত্রিশ বছর যার বয়স। যার-ঘরে পাঁচটা সন্তান। স্বামী থাকে শহরে। চিঠিটা খুলতেই সে জেনে যাবে — তার …

পরানের গহীন ভিতর ।। সৈয়দ শামসুল হক

সৈয়দ শামসুল হক। সব্যসাচী সাহিত্যিক। সাহিত্যের এমন কোন শাখা নেই, যেখানে তিনি সফল হননি। ৮১ বছরের জীবনে দুই শতাধিক বই লিখেছেন তিনি। কবিতার বইয়ের সংখ্যাও অনেক। কাব্যগ্রন্থগুলোর মধ্যে আঞ্চলিক ভাষায় লেখা ‘পরানের গহীন ভিতর’ তুমুল আলোচিত বই। বইটি প্রথম প্রকাশ পায় ১৯৮০ সালে। এখনও বাংলা কবিতার পাঠকদের কাছে ‘পরানের গহীন ভিতর’ সমান সমাদৃত। ২০০৪ সালে …

আমি আলো অন্ধকার ।। নির্বাচিত ২৫ কবিতা ।। গৌতম চৌধুরী

গৌতম চৌধুরীর জন্ম ২রা মার্চ, ১৯৫২। প্রথম জীবনে সম্পাদনা করেছেন একটি কবিতাপত্রিকা ‘অভিমান’ (১৯৭৪-৯০)। প্রথম কবিতার বই ‘কলম্বাসের জাহাজ’ প্রকাশ হয় ১৯৭৭ সালে। সম্প্রতি বইটির পুনঃমুদ্রণ করেছে রাবণ। সর্বশেষ কবিতার বই ‘কে বলে ঈশ্বরগুপ্ত’ কলকাতার ধানসিঁড়ি থেকে বের হয়েছে অল্প কিছুদিন হলো। এ বছর ফেব্রুয়ারিতে ঢাকার সংবেদ থেকে প্রকাশ হয় ‘বনপর্ব’।  ‘ধ্যানী ও রঙ্গিলা’ প্রকাশ …

দশটি কবিতা ।। শামীম আরেফীন

  বিন্দুর ভেতরে আকাশ উড়তে উড়তে যে কোনো পাখিই বিন্দুর মতো অথচ ধ্রুব আরেকটি আকাশ। মেঘের আধিক্য বেড়ে গেলে দীর্ঘশ্বাসগুলো প্রতিদিন অলৌকিক পাখি হয়ে যায় উড়বার সাধ নিয়ে যে সব কুমারী আকাশ নেমে আসে ভ্রমণশীল পাখিদের বুকে, আমরা তাকে ঝুলিয়ে রেখেছি ধাতব জানালায় আর কোনো কোনো বিন্দুকে দূর থেকে ভেবেছি বিস্তর মাঠ ত্রস্ত অন্ধকারে ভেসে …

গুচ্ছ কবিতা ।। সুবর্ণা গোস্বামী

অমরত্বের প্রতি যেখানেই কান থাকে সেখানেই থাকে কানপাশাগুলি, জন্মান্তর! ঢুলি নিজেই জানেনা তার ঢোলের দ্রিদিম। হতাশা নোলক হয়ে ফুঁড়ে থাকে বিবাহ প্রাচীরে। শেষমেশ হারিয়েও যায় তারা…… উদরের সুবর্ণ মেদ ঝরে ঝরে ইতিমধ্যে বৃক্ষ। বৃক্ষেরা পাতা তুলে ধরে মহাকাল সমীপেষু! চিঠি ভাসে…জলহীন হলুদ চিঠি… উৎসব! এইসব লোকক্ষয় নক্ষত্রের নিয়মে লক্ষ বৎসর পর আলো তার পৌঁছায় নতুন …

‘ঘোড়া ও প্রাচীর বিষয়ক’ পাণ্ডুলিপি থেকে নির্বাচিত কবিতা ।। শাহ মাইদুল ইসলাম

হৃদয়ের বোনেরা বোনেরা শাড়ি পরে এখানটায় দাঁড়ালো, তারা স্থির ছবি পেতে চায়। বড় ভালো মৃদু-মন্দ হাওয়ার ব্যবহার, মূহুর্তের পাতাগুলো সহজ উড়ছে সদর দরোজা থেকে আমাদের মা, হাসিমুখ পত্রালি জড়ো করছেন। বাড়িতে আছে এক কাগজি লেবুর ঘ্রাণ, মগজ খুশির ভাব টেনে নিচ্ছে মগজে অত্যুজ্জ্বল হৃদয়ের বোনেরা পরপর সব ছবি মূহুর্তগুলো শনাক্ত করে মূহুর্ত করে তুলছে, ভাড়ারে …

নির্বাচিত ২৫ কবিতা ।। আন্দালীব

আজ পহেলা অক্টোবর। বাংলা ভাষার কবি আন্দালীব-এর জন্মদিন। কবির জন্মদিনে শিরিষের ডালপালার শুভেচ্ছা। পড়ুন কবির স্বনির্বাচিত ২৫টি কবিতা।   একটা রঙিন ফুলের পাশে তিনি দেখছেন একটা রঙিন ফুলের পাশে লেখা আছে এবারের বসন্ত বিথোভেনের সকল প্রজাপতি চাপল্য নিয়ে উড়ে গেছে এক অফুরান হর্ষের দিকে তিনি দেখছেন খানিক ঢলায়িত কোন মালিনীর হাসি বাগানবিলাস আহা লাস্যের রীতিনীতি …

কনক ও বনমোরগ সিরিজের সাতটি কবিতা ।। হাসনাত শোয়েব

মাছ ধরার গান বাবার সাথে আমরা যখন মাছ ধরার গান শুনতে যেতাম আমাদের একটা নদীর প্রয়োজন হতো। আমরা আঙুল দিয়ে মাটি কেটে কেটে নদী বানাতাম। বাবা একটা পাতা নদীতে দিয়ে বলত— এটা হল মাছ। সেই থেকে আমরা পাতা দেখলে মাছ মাছ বলে চিৎকার করে উঠতাম। সেবার শীতকাল আর গেলো না। মানে শুধুই শীত। আমরা নদীতে …

মা প্রজাপতি ও অন্যান্য ছায়া ।। আপন মাহমুদের দশটি কবিতা

কবি মরে না। আপন মাহমুদ নেই। তার কবিতা আছে। থাকবে। আপন মাহমুদ কবিতাতেই বেঁচে থাকবেন। ১৯৭৬ সালের পহেলা জানুয়ারি কবি আপন মাহমুদের জন্ম। লক্ষীপুর জেলায়। পেশায় সাংবাদিক এই কবি ২০১২ সালের ১২ সেপ্টেম্বর অকস্মাৎ মৃত্যুবরণ করেন। প্রথম দশকের কবি আপন মাহমুদের প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থ একটিই; ‘সকালের দাড়িকমা’। বইটির প্রকাশক কথা প্রকাশ। চতুর্থ মৃত্যুবাষির্কে দশটি কবিতা পুনঃপ্রকাশ …