মাজুল হাসানের গল্প : ভেদরেখার ওপারে ।। এমরান কবির

গল্পকার হিসেবে যখন কোনো কবি আবির্ভূত হন তখন যেকোনো সমালোচক তার গল্প বিশ্লেষণ করতে গিয়ে কবিসত্তার প্রভাব নিয়ে আলোচনা করেন। এবং প্রায়শঃ লক্ষ করা যায় কবির লেখা গল্পে কবিসত্তার প্রভাব থাকেই। পড়তে গিয়ে মনে হয় ‘ও এখানে এরকম। আসলে উনি কবি তো। ’ কিন্তু কবি মাজুল হাসানের গল্প পড়তে গিয়ে কখনোই মনে হয়নি তিনি আসলে …

The Ministry of Utmost Happiness : আনন্দমঠ (১৮৮২) থেকে পরমানন্দের মন্ত্রণালয়ের (২০১৭) দিকে যাত্রা ।। মৃদুল মাহবুব

বঙ্কিমচন্দ্রের ‘আনন্দমঠ’ আর অরুন্ধতি রায়ের ‘পরমানন্দ মন্ত্রণালয়’ (The Ministry of Utmost Happiness); কোথায় যেন একটা মিল আছে! অরুন্ধতি রায়ের ‘ পরমানন্দ মন্ত্রণালয়’ (The Ministry of Utmost Happiness) দু’দিন হলো পড়ে শেষ করালাম। প্রথমেই যে কথা মনে হচ্ছে তা হলো ‘আনন্দমঠ’ ১৮৮২, বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপধ্যায় ও বন্দে মাতরম্। বহুজাতীয়তাবাদী ভারত রাষ্ট্রকে দুর্গার প্রতিরূপ হিসাবে দেখার যে দেশাত্মবোধক …

চন্দ্রগ্রস্ত আত্মার ছায়ায়: প্রিয় একটি কবিতার ব্যক্তিগত পাঠ ।। সুহৃদ শহীদুল্লাহ

ও চাঁদ   যে চাঁদ মাস্তুলে বাড়ি খেয়ে ভেঙ্গে গ্যালো যে চাঁদ সাগরে টুকরো টুকরো হ’য়ে                                         ঝ’রে পড়লো যে চাঁদ সমুদ্রের নিচে শুয়ে আছে                                খন্ড বিখন্ড হয়ে সে চাঁদ তুমি নও তুমি তার প্রেতাত্মা বাংলা ভাষায় দানবিক এক প্রতিভার জন্ম হয়েছিল বাংলাদেশের জন্মবছরেই। মাত্র ২৪ বছর ৫ মাস ১৮ দিন বাঁচার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন …

একজন হুমায়ূন যখন ধর্মপ্রচারক ।। আঁখি সিদ্দিকা

‘‘আমি প্রচার করি একটি জিনিস, খুব সচেতনভাবে করি। আমি বিশ্বাস করি, মানুষ হয়ে এ পৃথিবীতে আমরা জন্মগ্রহণ করেছি, এর চেয়ে বড়, এর চেয়ে বেশি আনন্দের আর কিছু নেই । মানুষ যে কী পরিমাণ ক্ষমতা রাখে! সীমাহীন ক্ষমতা এই অর্থে যে, তার চিন্তা করার ক্ষমতা, প্রচণ্ড মানসিক গুণ এগুলো নিয়ে বারবার মানুষকে বলতে চাই যে, তোমরা …

হুমায়ূন আহমেদের ছোটগল্প, তাদের বড় জগত ।। এনামুল রেজা

১ কিছুদিন আগে এক লেখায় বলেছিলাম, পরিণতি প্রবণতা ছোটগল্পের সবচে’ বড় ত্রুটি। বৈশ্বিক ছোটগল্পের যে বিপুলা পৃথিবী, সেখানে খুব সামান্য এবং চলমান হাঁটাহাটির ফলস্বরূপ উপলব্ধিটি কোন একভাবে মগজে গেঁথে গিয়েছে—বিশ্বসাহিত্যের অধিকাংশ ছোটগল্পই তো পরিণতি প্রবণতাকে হেয় করে, সেগুলো কিছু দৃশ্যের বর্ণনায় পাঠকের সামনে কেবল একটি বা একাধিক জগতের দরজা খুলে দেয়, ঐসব জগতে ঘুরে বেড়াবার …

পাঠকামি: ব্রায়ান অ্যাডামস ও মারমেইড বিষ্যুদবার ।। পিযূষকান্তি বিশ্বাস

হাতে এসে পৌঁছালো ব্রায়ান অ্যাডাম্‌স ও মারমেইড বিষ্যুদবার। লেখক হাসনাত শোয়েব। এই লেখকের লেখা বইয়ের পাতায় এই প্রথম পড়লাম। কবির সঙ্গে চেনা পরিচয় বলতে সোস্যাল মিডিয়া ও অনলাইন ম্যাগাজিন মাধ্যম থেকে। প্রথম ঝলকেই লেখাগুলির আলাদা পাঠ্যগুণের কথা মনে পড়ে যায়, একটার পর একটা চমক আসে। লেখাগুলি এগিয়ে যায় একটা এলগোরিদমের মতো, তারপর একটা বিনির্মাণের মোড় …

এক অন্ধ সুরঙ্গখনকের জবানবন্দি ।। গৌতম চৌধুরী

কবিতার বয়ান কি গদ্যে পেশ করা যায় নাকি? তাহা লইয়া কিছু বলিতে গেলে, ফিরিয়া একটি কবিতাই লিখিতে হয়। তাই বলিয়া কবিরা যে গদ্যেও কবিতার মোকাবিলা করেন না তাহা নয়। অনেক মহা মহা কবিই তাহার নমুনা রাখিয়াছেন। তবে, বলিতে কি, সেসবের বেশির ভাগ হইল কবি-র কথা, কবিতা-র কথা নয়। অর্থাৎ কবিতাকথার বকলমে নানা কবির নানা কিসিমের …

কবিতার পেছনে দৌড় চলে না, কবিতা খুঁজে নিয়ে শরীরকে বলে, “কিছুটা শরীর সহো” ।। তাসনুভা অরিন

পৃথিবী যে শরীর জন্ম দিল সে কি তা সহ্য করে, না বোধের নির্মাণে নিজেরই কাছে বোহেমিয়ান করে রাখে নিজের অস্তিত্ব? কে কাকে সহ্য করে অস্তিত্ব সঙ্কটের এই পৃথিবীতে? সংশয় বস্তুবাদী সময়ের কোন সমালোচনা না, বরং অস্থি চামড়ার মতন সত্য। এই সত্যকে যখন প্রশ্ন করা হয়, ”তুমি কে?” সত্য তখন বিভাজিত যেমন সপ্তপদী খেলা আলোর আড়ালে …

রোবায়েতের আলাপে শোয়েবের মারমেইড বিষ্যুদবার

ইটের জঞ্জাল আর বিষাক্ত শীসার ঢাকা নগরীর বাইরে গিয়ে সপ্তাহান্তে ফুসফুস ভরে শ্বাস নেয়ার চেষ্টা করলে কেমন হয়? সঙ্গে যদি কবিতা থাকে, কবিতা প্রসঙ্গে আড্ডা জমানো যায়, ব্যাপারটা মন্দ হয় না। কবির ফুসফুস তো তার কবিতা। এরকম ভাবনা থেকেই সপ্তা দুই আগে বন্ধুরা সিদ্ধান্ত নেই, সাপ্তাহিক ছুটির দিনে ঘুরতে যাবো। প্রথম সপ্তাহে আমরা যাই জাহাঙ্গীরনগর …

অর্ঘ্যের কবিতা; মরে যাওয়া কোন খুলিতে, যেই সুর এসেছিলো ।। অনুপম মণ্ডল

“সৌন্দর্য সম্পর্কে বিশুদ্ধ ভাববাদ এই কথা বলে যে, সৌন্দর্য বস্তুতে নেই, চেতনার রঙেই সবকিছু রঙিন হয়ে ওঠে এবং এই দৃষ্টিতেই কবি বলতে পারছেন “গোলাপের দিকে চেয়ে বললুম সুন্দর/সুন্দর হোল সে” এর উল্টো পিঠের কথা হোল সৌন্দর্য বস্তুর বিশেষ কোন গুণ বা বৈশিষ্টের উপর নির্ভর করে। সৌন্দর্য রসিকের উপর নয়। প্রথমটিকে আমরা বলি ভাববাদ। দ্বিতীয়টিকে বলি …