‘বেড়ে ওঠা ভাষা-ভূগোলের একটা দায় থাকে, মায়ের দুধের মতো’ – ফারাহ্ সাঈদ

দ্বিতীয় দশকের কবিদের ধারাবাহিক আড্ডায় দশম পর্বে মধ্যমণি ছিলেন ফারাহ্ সাঈদ। ফারাহ্’র বসবাস ক্যালিফোর্নিয়ায়। কিন্তু ছোটবেলায় শুরু করা লেখালেখি ছাড়েননি। বাংলা ভাষায় কবিতা এবং গল্প লিখে যাচ্ছেন। তার কবিতার ভাষা, বিষয় এবং সিনট্যাক্স অনেকাংশেই অভিনব। সে কারণেই বাংলা কবিতায় ফারাহ্ সাঈদ গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠতে পারেন। ফারাহ্’র সঙ্গে এই আড্ডা দেবার প্রধান কারণ এটিই। তার বই প্রকাশ হয়েছি তিনটি। …

মাহবুব অনিন্দ্য’র ‘অপার কলিংবেল’ পাণ্ডুলিপির কবিতা ও কবি’র গদ্য

‘কবিতা লেখা অত সহজ কাজ না’— দাগেস্তানের কবি রসুল গামজাতভ ব’লেছিলেন একথা। কিছু পরে আবার বলেছেন, ‘কবিতা লেখা অত কঠিন কাজও না’। তার মানে, কবিতা লেখা একইসাথে কঠিন ও সহজ। যেমন পাহাড়ে ওঠা। অনেকের কাছে কঠিন। আবার অনেক মানুষ তরতর করে উঠে যায় শীর্ষে।   শুধু লেখা কেন, পড়ার ব্যাপারটাও কি কম কঠিন? লিখতে গেলে পড়তেও …

আর্ট ফ্রম গুয়ানতানামো । মূল : এরিন থম্পসন । ভাষান্তর : মাহমুদ মাসুদ

আমি একটি চিত্রকর্মের দিকে তাকিয়ে আছি, সমুদ্র সৈকতের। জনশূন্য চিত্রটি সূক্ষ্ম অন্তরীপরেখা, বিশুদ্ধ বালি আর স্বচ্ছ জলের ফ্রেমে আটকে আছে। জলরঙের সূক্ষ্ম আঁচড়ে আঁকা। ভাবছি ওই সৈকতে যাওয়ার জন্য আমি কতটাই না ব্যকুল হয়ে আছি। যতবারই তাকাই, ততবারই এই ভাবনা মাথায় উঁকি দেয়। কিন্তু আমি তা পারবো না। কেউই পারবে না, এমনকি শিল্পীও না। এই …

ধারাবাহিক উপন্যাস – তারাদের ঘরবাড়ি । অলোকপর্ণা । সমাপ্তি পর্ব

                                তারাদের ঘরবাড়ি  ২০   অনেক সময় এমন মনে হয় না, এই শেষবারের মতো কিছু হচ্ছে জীবনে? এই শেষবারের মতো বাড়ি ছাড়লেন, এই শেষবারের মতো ছেলেবেলা গলি দিয়ে চলে গেল হেঁটে হেঁটে, এই শেষবার দেখলেন প্রিয় পোষ্যর মুখ, বা অতি …

লিখতে গেলে মাথায় কিছুই থাকে না। সাদা পৃষ্ঠার সাথে যুদ্ধ ছাড়া — অনুপম মণ্ডল

শিরিষের ডালপালার আয়োজনে দ্বিতীয় দশকের কবিদের সঙ্গে আড্ডার এবারের পর্বে আড্ডা হয়েছে কবি অনুপম মণ্ডলের সঙ্গে। আগের সব আড্ডার ধারাবাহিকতায় অনুপমের সঙ্গে আড্ডায়ও পিঠ চাপড়ানোর চেয়ে সমালোচনাই হয়েছে বেশি। যেটা আমাদের উদ্দেশ্য — আত্মসমালোচনার মাধ্যমে বাংলা কবিতায় নতুন কিছুর উদ্দেশ করা, অনুপমের সঙ্গে আড্ডাটা তারই চলমান প্রক্রিয়া। কবি অনুপম মণ্ডল খুলনায় থাকেন, সমাজবিজ্ঞানের শিক্ষক। তার প্রকাশিত বই …

দশটি কবিতা ।। খন্দকার নাহিদ হোসেন

মায়া গহনে কাঠের আড়তদার থামায় জিগায়…ও মিয়া, কোন গ্রাম? আমি হাত তুইলা উজান দেখাইলে তার চক্ষু বড় হয়-গপসপে ডাকে… হাটবার হাটবার;   সন্ধ্যায় অঞ্চল জুইড়া সাপের ডর পা চালাইলে…আন্ধারও বাড়ে ভুইলা ভুইলা যাই-পিছনের বেলা কুপির আগুন;   তবু ঘুমাইলে এহনো খোয়াবে শুনি- ‘বুঝলা মিয়া, এইখানেই এই জন্ম অথচ আল্লায়ও জানে-উজানে কাঠের দাম মেলা…!’     …

আলবার্ট কামু অন হ্যাপিনেস অ্যান্ড লাভ ।। ভাষান্তর : মাহমুদা স্বর্ণা

‘আমরা যাদের ভালোবাসি তারা যদি কোনভাবে জানতে পারতো ,তাদের সাথে পরিচয়ের আগে আমরা কেমন ছিলাম তবে তারা সহজেই উপলব্ধি করতে পারতো তারা আমাদের কতোটা বদলে দিয়েছে।’ উইন্ডি ম্যাকনটন চিত্রায়িত আলবেয়ার কামুর সুখ ও প্রেম সম্পর্কিত রচনা ‘অন হ্যাপিনেস অ্যান্ড লাভ’। ম্যাকনটন নোবেল পুরস্কারপ্রাপ্ত ফরাসি লেখক, দার্শনিক আলবেয়ার কামুর দিনলিপি ‘নোটবুকস ১৯৫১-১৯৫৯ (পাবলিক লাইব্রেরি)’ থেকে উল্ল্যেখযোগ্য …

তুঁহু মম যম সমান । প্রান্ত পলাশ

(প্রিয় গাল্পিক খোকন কায়সারকে)   হালের জগন্নাথ ইউনিভার্সিটি, আগে কলেজ আছিল, সেইখানে দাঁড়াইয়া অশোক ব্যানসন লাইট টানতে লাগল। সেইখানে মানে গেইটের সামনে, ঠিক গেইটের সামনেও না, একটু পাশে, ফুটপাত ফুটপাত ভাব যেইখানে। গরমকাল। লেবুপানি বেচতেছে অনেকে। কাঠের কী একটার ভেতর লেবু ফালি কইরা হান্দায় আর মুঠি দিয়া চাপ দেয়। ফিরিত কইরা লেবুর রস গেলাসে ঢোকে। …

আরো কিছু গাছ এবং অপ্রকাশিত টোস্ট বিস্কুট সমগ্র । হাসনাত শোয়েব

এখানে আরো কিছু গাছ ছিল। তাদের গায়ে ছিল হালকা সবুজ রঙের জামা। গাছকে জামা পরানো সহজ না। তাও খুঁজে খুঁজে সবুজ রঙের জামা। শেফালি ও মিরন সেই কঠিন কাজটাই গত তিন বছর যাবৎ করছে। গত তিন বছরে আড়াই হাজার গাছকে জামা পরিয়েছে তারা। গাঢ় সবুজ জামা। বনের ভেতর দিয়ে তারা মাঝেমাঝে হলুদ বাস যেতে দেখে। …

দাগ । মেহেদী উল্লাহ

রমজান মাসের শেষ শুক্রবার। আছরের ওক্তের পরে। লোকাল বাসে চড়ে কাছে কোথাও যাচ্ছিলাম। বাসের পেছনের দরজা দিয়ে উঠে দাঁড়িয়েই থাকতে হলো, দরজার ধারেই, সিট খালি নাই। বাইরে তাকিয়ে আছি। এবার চোখ ভেতরে আনতেই হলো। শেষ সারির একেবারে বাম পাশের সিটে এক যুবক কোরান শরীফ পড়ছে, মোবাইলে পিডিএফ থেকে। অনেকক্ষণ পর পর তাতে চোখ রাখছে, বোঝা …